আদালতে মিথ্যা জবানবন্দি দিয়ে ছেলেকে ফাঁসানোর অভিযোগ মায়ের

প্রকাশিত: 12:50 AM, October 4, 2020

আদালতে মিথ্যা জবানবন্দি দিয়ে ছেলেকে ফাঁসানোর অভিযোগ মায়ের

সিলেট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন
আদালতে মিথ্যা জবানবন্দি দিয়ে ছেলে সাগরকে ‘রিপন হত্যা’র ঘটনায় ফাঁসানোর অভিযোগ করেছেন রিনা বগেম নামে একে নারী। শনিবার দুপুরে সিলেট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এ অভিযোগ করেন তিনি। রীনা বেগম দক্ষিণ সুরাম উপজেলার বরইকান্দি এলাকার শফিক আহমদের স্ত্রী।
লিখিতি বক্তব্যে তিনি বলেন, চলতি বছরের ১০ জুলাই ইজাজুল ইসলাম ও মো. রেজোয়ান হোসেন রিমুর নেতৃত্বে বাবনা পয়েন্ট এলাকায় কয়েকজন সন্ত্রাসী মিলে ট্যাংক-লরী শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মো. ইকবাল হোসেন রিপনকে কুপিয়ে হত্যা করে। এ ঘটনায় রিমু আমার ছেলে সাগরকে ফাঁসাতে আদালতে মিথ্যা জবানবন্দি দিয়েছে। অথচ বরইকান্দি এলাকায় সবসময় এলাকা ভিত্তিক মারামারির ঘটনা ঘটার কারণে এবং এসব থেকে রক্ষার জন্য বড় ছেলে সাওয়াল হোসেন সাগরকে আমি আমার চাচার বাসায় শিবগঞ্জে রাখি। গত রমজান মাসে তুচ্ছ বিষয়কে কেন্দ্র করে ইজাজুল ইসলাম ও মো. রেজোয়ান হোসেন রিমুর সহিত আমার বড় ছেলের কথা কাটাকাটি হয়। বিষয়টি জানার পর সাগরকে আমার চাচার বাসায় পাঠিয়ে দেই।
তিনি বলেন, এ ঘটনায় ক্ষেপে গিয়ে ট্যাংক-লরী শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মো. ইকবাল হোসেন রিপন হত্যা মামলার অন্যতম আসামী মো. রেজোয়ান হোসেন রিমুকে পুলিশ রিমান্ডে নিলে সে আমার নিরাপরাধ ছেলেকে খুনের মামলায় ফাঁসানোর উদ্দেশ্যে তার জবানবন্দিতে আমার ছেলের নাম (সাগর) জড়িয়ে মিথ্যা স্টেইটমেন্ট দেয়। এসব তথ্য যাচাই বাচাই না করেই পুলিশ একাধিকবার আমার বাসায় অভিযান করে আমার ছেলেকে ধরার জন্য। অথচ ঘটনার দিন ওই সময়ে আমার ছেলে তার নানার বাসায় ছিল। পুলিশ ইচ্ছে করলেই ঘটনার দিন ও তারিখে আমার ছেলের ব্যবহৃতত মোবাইল ফোনের কললিষ্ট যাচাই করলেই আসল সত্য জানা সম্ভব হবে।
তিনি বলেন, আসামি ইজাজুল ও রিমু পূর্ব শত্রুতার জেরে ইচ্ছে করেই আদালতে আমার ছেলের নামে মিথ্যা জবানবন্দি দিয়েছে। আমার ছেলে এ ঘটনার সঙ্গে কোনভাবেই জড়িত নয়। মামলার বাদী এবং সাক্ষীরাও আমাকে এ বিষয়ে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন।
এ সময় তিনি তার ‘নিরাপরাধ’ ছেলেকে খুুনের মামলার দায় থেকে অব্যাহতি দিতে সংশ্লিষ্টদের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ ২৪ খবর