কমলগঞ্জে ১৬ করাতকল বন্ধ

প্রকাশিত: 2:19 PM, January 6, 2020

কমলগঞ্জে ১৬ করাতকল বন্ধ

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে কাঠ ও ফার্নিচার ব্যবসায়ীরা পাঁচদিন ধরে ধর্মঘট পালন করছেন। করাতকলের খরচ হঠাৎ দ্বিগুন করায় এ সংকট। ফলে পৌরসভাধীন ১৬টি করাতকল এখন বন্ধ রাখতে বাধ্য হয়েছেন মালিকরা।

সূত্র জানায়, পূর্ব কোন ঘোষণা ছাড়াই কমলগঞ্জ পৌরসভাধীন ১৬টি করাতকল বাড়িয়ে দিয়েছে কাঠ চেরানোর খরচ। প্রতি ঘনফুট কাঠের জন্য খরচ ১৫ থেকে ২০ টাকা করে বেড়েছে। আগে ২০ টাকা ঘনফুট কাঠ চেরানো হলেও এখন দাবি করা হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা। কমলগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ছোট বড় কয়েক’শ ফার্নিচারের দোকান রয়েছে। তাদের প্রয়োজনীয় কাঠ পৌরসভার এসব করাতকলে চেরাতেন। সৃষ্ট পরিস্থিতিতে ১ জানুয়ারি থকে করাতকলে কাঠ চেরানো বন্ধ রেখেছেন কাঠ ও ফার্নিচার ব্যবসায়ীরা।

করাত কলের মালিক এএসএম আজাদুর রহমান বলেন, ‘আগে একটি মাত্র লাইসেন্স গ্রহন করে কাঠ চেরানো যেত। এখন পরিবেশ অধিদপ্তরের আলাদা নিবন্ধন গ্রহন,ট্রেড লাইসেন্স,ভ্যাট ও ইনকাম ট্যাক্সসহ ৭/৮ টি বিভাগের নিবন্ধন নিয়ে কাঠ চেরানোর কাজ করতে হয়। এসব ফি পরিশোধ করতে গিয়ে খরচ বেড়ে যাওয়ায় কাঠ চেরানোর দাম বাড়ানো হয়েছে।’

কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো. জুয়েল আহমদ বলেন, ‘কাঠ ব্যবসায়ীদের সাথে আলোচনা না করেই

  •  

সর্বশেষ ২৪ খবর