কানাইঘাটে জনতার হাতে চোর আটক

প্রকাশিত: 11:44 PM, December 8, 2019

কানাইঘাটে জনতার হাতে চোর আটক

কানাইঘাট প্রতিনিধি : কানাইঘাট উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় গরু মহিষ চুরির সংবাদ পাওয়া গেছে। গত কয়েক দিন পূর্বে কানাইঘাট লক্ষ্মীপ্রসাদ পূর্ব ইউপির কেউটি হাওর থেকে ২০টি মহিষ চুরি হয়। এ ঘটনায় মহিষের মালিক সোনার খেওড় গ্রামের শফিকুল হকের পুত্র মোস্তাক আহমদ মেম্বার আদালতে মামলা দায়ের করলে মামলার আসামী বাউরভাগ ৪র্থ খন্ড গ্রামের মৃত আব্দুল মন্নানের পুত্র আব্দুন নূর (৪৫) রবিবার সিলেটের কানাইঘাট আমল গ্রহণকারী আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন চাইলে বিজ্ঞ আদালত তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

এছাড়া বিয়ানীবাজার উপজেলার পাতন বড়পাড়া গ্রামের মৃত রফিক উদ্দিনের পুত্র গরু চোর সামছুল ইসলাম (২৮) কানাইঘাট কুড়ারপার গ্রামে রবিবার ভোর রাতে গরু চুরি করতে এসে স্থানীয় জনতার হাতে সে আটক হয়। পরে তাকে থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়। এ ঘটনায় থানায় কুড়ারপার গ্রামের মৃত মফুর আলীর পুত্র মুহিবুর রহমান বাদী হয়ে রবিবার থানায় গরু চোর গ্রেফতারকৃত সামছুল ইসলামের নাম উল্লেখ করে আরো অজ্ঞাতনামা ৩/৪ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন।

জানা যায়, গ্রেফতারকৃত সামছুল ইসলাম সহ তার সহযোগীরা রবিবার ভোর রাতে কুড়ারপার গ্রামের মুহিবুর রহমানের গোয়ালা ঘর থেকে ৫টি গরু চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় বাড়ির লোকজন টের পান। এ সময় গরু রেখে পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় লোকজন সামছুল ইসলামকে আটক করতে সক্ষম মহন। স্থানীয় রাজা নিয়েছেন কয়েক দিন পূর্বে কুড়ারপার গ্রামের সিরাজ উদ্দিনের ৪টি গরু ও বড়চতুল গ্রামের আইয়ুব আলীর ২টি গরু এবং শুক্রবার রাতে দুয়ারীমাটি গ্রামের শাহাবের আরো ২টি মহিষ চুরির ঘটনা ঘটে। জানা গেছে সম্প্রতি উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে আরো বেশ কয়েকটি গরু মহিষ চুরি হয়েছে।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ ২৪ খবর