জগন্নাথপুরে অবহেলায় শিশুর মৃত্যুর তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল

প্রকাশিত: 10:25 PM, January 28, 2020

জগন্নাথপুরে অবহেলায় শিশুর মৃত্যুর তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল

জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার ও নার্সের অবহেলায় সাড়ে তিন মাসের শিশুর মৃত্যুর অভিযোগে গঠিত তদন্ত কমিটি প্রতিবেদন দাখিল করেছে। ২৭ জানুয়ারি সোমবার জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার চলতি দায়িত্বে থাকা মেডিকেল অফিসার ডাক্তার শায়েখুল ইসলাম জেলা সিভিল সার্জন বরাবর প্রতিবেদনটি দাখিল করেন। প্রতিবেদনে কী বলা হয়েছে, এ বিষয়ে জানতে চাইলে ডাক্তার শায়েখুল ইসলাম তথ্য জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেন। তবে তদন্ত কমিটির প্রধান কর্মকর্তা জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার শারমিনা আর আশা বলেন, তদন্তে প্রাথমিকভাবে নার্সের দূব্যবহারের প্রমাণ পাওয়া গেছে।

.
প্রসঙ্গত, জগন্নাথপুর উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের বাগময়না গ্রামের জিয়াউর রহমানের তিন মাসের শিশুপুত্র আমান রহমান গত ১৩ জানুয়ারি জ্বরে আক্রান্ত হয়ে পড়লে তাকে ওই দিন দুপুরে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। ভর্তির পর নার্স টিংকু আচার্য্য শিশুর শরীরের রগে কেনুলা ইনজেকশন পুশ না করে শরীরের মাংসে পুশ করে। এতে শিশুটির শরীরে প্রচণ্ড রক্তক্ষরণ হলে শিশুর শারীরিক সংকটে পড়ে। এসময় জরুরি বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক নাজমুল সাদাত এবং নার্স কিংবা অন্য কোন চিকিৎসকে খোঁজাখুঁজি করেও পাওয়া যায়নি। এক পর্যায়ে শিশুটির মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিহতের বাবা জিয়াউর রহমান উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার বরাবর ডাক্তার, নার্সের অবহেলায় শিশুর মৃত্যু হয়েছে দাবি করে গত ১৬ জানুয়ারী জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। যার প্রেক্ষিতে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার শারমিন আরা আশা কে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওই কমিটির অপর দুই সদস্য ছিলেন ডা. তারিকুল ইসলাম ও নার্সদের ইনচার্জ জোৎনা সেন। সাত দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছিল।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ ২৪ খবর