জগন্নাথপুর মুক্ত দিবস ৯ ডিসেম্বর

প্রকাশিত: 11:50 PM, December 8, 2019

জগন্নাথপুর মুক্ত দিবস ৯ ডিসেম্বর

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি: ১৯৭১ সালের ৯ ডিসেম্বর সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলা শত্রুমুক্ত হয়েছিল। স্বাধীনতা যুদ্ধে জগন্নাথপুরে ইতিহাসের বর্বরতম গনহত্যা সংগঠিত হয়েছিল। হানাদারদের নৃশংসতা ও রাজাকারদের অপতৎপরতার বিরুদ্ধে বলিষ্ট ভুমিকা রেখেছেন এ অঞ্চলের জনগন। জগন্নাথপুরের বিপুল সংখ্যক ছাত্র, যুবক, শিক্ষক, কৃষক, আইনজীবি মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেন। একাত্তরের ৩১শে আগষ্ট শ্রীরামসী ও ১লা সেপ্টেম্বর রানীগঞ্জ বাজারে পাক হানাদাররা চালায় ভয়াবহু হত্যাযজ্ঞ। শত শত মানুষকে সারিবদ্ধভাবে দাঁড় করিয়ে হত্যা করে।
.
সেই পৈশাচিক হত্যাকাণ্ডে আজও এ অঞ্চলের মানুষের হৃদয়ে নাড়া দেয়। ৯ ডিসেম্বর ১৯৭১সালে শত্রুমুক্ত হয় জগন্নাথপুর উপজেলা। সাহসী যুদ্ধাদের কাছে রাজাকার, পাকসেনারা সেদিন আত্মসমর্পন করে। জগন্নাথপুর উপজেলায় প্রথম স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ব্যারিষ্টার মরহুম মির্জা আব্দুল মতিন। মুক্তিযুদ্ধে এ উপজেলায় গৌরবোজ্জল ভূমিকা রেখেছেন সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী মরহুম আব্দুস সামাদ আজাদ, সাবেক সংসদ সদস্য মরহুম অ্যাডভোকেট আব্দুর রইছ, ব্যারিস্টার মরহুম মির্জা আব্দুল মতিন, আব্দুল কাদির শিকদার, আব্দুল কাইয়ুম, আব্দুল হক, ব্যারিস্টার মির্জা আব্দুল ওয়াহিদ, মির্জা আব্দুছ ছত্তার, বাদল চৌধুরী, মাহবুবুর রহমান, আখলাকুর রহমান, ইন্তাজ আলী, রসরাজ বৈদ্য, মিজানুর রহমান, মানিক পাল, সৈয়দ আতাউর রহমান, সিরাজুল ইসলাম, সাজ্জাদুর রহমানসহ অনেকে। এদিকে মুক্ত দিবস উপলক্ষে সোমবার দুপুরে উপজেলার মুক্তিযোদ্ধাদের আয়োজনে শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।

  •  

সর্বশেষ ২৪ খবর