নাগরিকত্ব সংশধোনী আইন নিয়ে মুখ খুললেন বিরাট

প্রকাশিত: 12:47 PM, January 5, 2020

নাগরিকত্ব সংশধোনী আইন নিয়ে মুখ খুললেন বিরাট

ডেস্ক প্রতিবেদন : শ্রীলংকার বিপক্ষে ৩ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ দিয়ে বছর শুরু করছে ভারত। রোববার গুয়াহাটিতে প্রথম টি-টোয়েন্টি খেলতে নামবে দুই দল। খেলায় নামার আগে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএবি) নিয়ে প্রথমবারের মত কথা বলেছেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। খবর ওয়ান ইন্ডিয়ার।

সিএবি নিয়ে ভারতজুড়ে এখনও প্রতিবাদ অব্যাহত। এ বিলের প্রতিবাদে উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে দেশটির অধিকাংশ সেলেব্রেটি নিজের মত প্রকাশ করেছেন। তবে বিষয়টি থেকে নিজেকে দূরে রেখেছিলেন বিরাট। ফলে ক্যাপ্টেনের এ নিয়ে মত কী, তা জানার জন্য তার ভক্ত ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারীদের মধ্যে আগ্রহ ছিল। অবশেষে এ নিয়ে কথা বললেন তিনি।

এদিন সংবাদ সম্মেলনে এ বিল এবং ভারতের বর্তমান উত্তাল পরিস্থিতি নিয়ে প্রশ্ন করা হয় কোহলি। জবাবে তিনি বলেন, সিএবি সম্পর্কে আমার জানাশোনা কম। তাই এ নিয়ে দায়িত্বজ্ঞানহীনের মত কোনো ধরনের মন্তব্য করা ঠিক হবে না। বিষয়টি নিয়ে আমাকে আগে জানতে হবে।

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদে গুয়াহাটিসহ আসামের একাধিক শহরে বিক্ষোভ চলছে। ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করে দেয়া থেকে শুরু করে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়। এখন অবশ্য গুয়াহাটির পরিবেশ অনেকটাই শান্ত। সেখানেই বর্ষাপাড়া ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ভারত-শ্রীলংকা ম্যাচ।

বিরাটদের ম্যাচের জন্য গুয়াহাটিজুড়ে জোরালো নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়। মাঠে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা যাতে না ঘটে সেজন্য কড়া অবস্থানে আসাম ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন (এসিএ)। স্টেডিয়ামে দর্শকদের পোস্টার-প্ল্যাকার্ড নিয়ে ঢোকায় বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে তারা। গ্যালারিতে সমর্থকদের যেকোনো ধরনের পোস্টার নিয়ে যাওয়া নিষিদ্ধ করেছে এসিএ। শুধু তাই নয় ব্যানার, বার্তাসংবলিত কাগজ, স্কেচ পেন, রং, তুলি, মার্কার বা পেন্সিল নেয়া নিষিদ্ধ করেছে তারা। এমনকি ক্রিকেট মাঠের অতি পরিচিত ‘চার’ ও ‘ছক্কা’ প্ল্যাকার্ডেও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

তথ্যসূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া

  •  

সর্বশেষ ২৪ খবর