পর্যটন প্রতিমন্ত্রীর কাছে সিলেট বিভাগ গণদাবী ফোরামের স্মারকলিপি

প্রকাশিত: 7:43 PM, January 25, 2020

পর্যটন প্রতিমন্ত্রীর কাছে সিলেট বিভাগ গণদাবী ফোরামের স্মারকলিপি

ডেস্ক প্রতিবেদন : বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট মাহবুব আলী এমপির কাছে সিলেট বিভাগ গণদাবী ফোরামের পক্ষ থেকে সিলেট বিভাগের বিভিন্ন দাবী সম্বলিত একটি স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। শুক্রবার সিলেট সার্কিট হাউসে সিলেট বিভাগ গণদাবী ফোরামের নেতৃবৃন্দ এ স্মারকলিপি প্রদান করেন। স্মারকলিপি প্রদানকালে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিলেট বিভাগ গণদাবী ফোরামের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মুজিবুর রহমান চৌধুরী এডভোকেট, ভারপ্রাপ্ত সভাপতি চৌধুৃরী আতাউর রহমান আজাদ এডভোকেট, জেলা শাখার সভাপতি দেওয়ান মসুদ রাজা চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক চৌধুরী দেলওয়ার হোসেন জিলন, মহানগর শাখার সভাপতি শামীম হাসান চৌধুরী এডভোকেট, চৌধুরী সামিউর রহমান সায়েম প্রমুখ।
স্মারকলিপিতে প্রদত্ত বিভিন্ন দাবীর মধ্যে রয়েছে দেশী-বিদেশী পর্যটকদের যাতায়াতের সুবিধার্থে সিলেট আন্তর্জাতিক ওসমানী বিমান বন্দর হতে বিভিন্ন রুটে চলাচলকারী বিমানের ফ্লাইটের সময় গভীর রাতের পরিবর্তনে দিনের বেলায় ফ্লাইটের সময় নির্ধারণ, সিলেট ওসমানী বিমান বন্দর দিয়ে যাতায়াতকারী সকল দেশী-বিদেশী যাত্রীদের সমযোগী দর্শনার্থীদের ব্যবহারের সুবিধার্থে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দর্শনার্থী বিশ্রামাগার নির্মাণ, সিলেট বিভাগের পর্যটন শিল্পের বিকাশ ও উন্নয়নে সিলেট-সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ ও মৌলভীবাজার জেলা পরিষদের মালিকানাধীন জেলা-উপজেলা সদর সহ সিলেট বিভাগের বিভিন্ন স্থানে অবস্থিত ডাক বাংলোগুলোকে উন্নয়ন-সম্প্রসারণ ও আধুনিকায়ন করে পর্যটকদের ব্যবহারের যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ, পর্যটন কেন্দ্র জাফলং, লোভাছড়া, লালারখাল, পান্তুমাই ঝর্ণা, রামা কালেঙ্গা ছড়া, বিছানাকান্দি, রাতারগুল, টিলাগড় ইকোপার্র্ক, মৌলভীবাজার জেলার অন্যতম পর্যটন কেন্দ্র মাধবকুন্ড, হামহাম ঝর্ণা, হাকালুকি হাওর, হাইল হাওর, কাউয়াদীঘীর হাওর, সাতছড়ি রিজার্ভ ফরেষ্ট, লাউয়াছড়া ইকোপার্র্ক, বর্শীজোড়া ইকোপার্ক, মুড়ারিছড়া ইকোপার্ক, হবিগঞ্জ জেলার পর্যটন স্পর্ট সাতছড়ি ইকোপার্ক, সুনামগঞ্জ জেলার পর্যটন স্পর্ট টাঙ্গুয়ার হাওর, যাদুকাটা নদী সহ সিলেট বিভাগের সকল পর্যটন স্পটকে আন্তর্জাতিক মানের পর্যটন কেন্দ্রে রূপান্তর করে দেশী-বিদেশী পর্যটকদের যাতায়াত ও নিরাপদ অবস্থানের সুবিধার্থে প্রতিটি পর্যটন কেন্দ্রে একটি করে পর্যটন মোটেল নির্মিাণসহ উন্নয়নের যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ, সিলেট বিভাগে দেশী-বিদেশী সকল পর্যটকদের নিরাপত্তার স্বার্থে পর্যটন পুলিশের জনবল, যানবাহন ও অবকাঠামোগত সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি করে সকল পর্যটন স্পর্টে একটি করে পর্যটন পুলিশ বক্স স্থাপন, পর্যটকদের যাতায়াতের সুবিধার্থে সিলেট-ঢাকা ও সিলেট-চট্টগ্রামে যাতায়াতকারী সকল আন্ত:নগর ট্রেনে প্রবাসী ও পর্যটকদের জন্য আসন সংরক্ষণের ব্যবস্থা, সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ও সিলেট রেলওয়ে স্টেশনে প্রবাসী ও পর্যটক হেল্প ডেক্স ও পর্যটক হটলাইন চালু।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ ২৪ খবর