প্রত্যাশার নতুন বছর : যা ভাবছেন শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিত: 12:47 PM, January 1, 2020

প্রত্যাশার নতুন বছর : যা ভাবছেন শিক্ষার্থীরা

ইমরান ইমন : ‘সত্য যে কঠিন/ কঠিনেরে ভালো-বাসিলাম… এই কঠিন সত্যকে সারথি করে ‘আজি এ ঊষার পুণ্য লগনে উদিছে নবীন সূর্য গগনে..। তমসা কেটে পূর্ব দিগন্তে আবহমান সূর্য আবার শুরু করলো নতুন যাত্রা। ‘সময় আর স্রোত কারো জন্য অপেক্ষা করে না’-এই সত্যকে বিমূর্ত করে নতুন বছরের প্রথম সূর্যোদয়। স্বপ্ন আর দিনবদলের অপরিমেয় প্রত্যাশার রক্তিম আলোয় উদ্ভাসিত শুভ নববর্ষ। বিদায় ২০১৯, স্বাগতম ২০২০। অভিবাদন নতুন সৌরবর্ষকে। বিশ্বের বয়স আরও এক বছর বাড়লো। এক বছরের ‘আনন্দ-বেদনা, আশা-নৈরাশ্য আর সাফল্য-ব্যর্থতার পটভূমির ওপর আমাদের ছাপ্পান্ন হাজার বর্গমাইলের এই প্রিয় বাংলাদেশ নতুন বছরে পর্বতদৃঢ় একতায় সর্ব বিপর্যয়-দুঃসময়কে জয় করবে অজেয়-অমিত শক্তি নিয়ে সংকল্পের সোনালী দিন আজ। আলোড়ন আর তোলপাড় করা ঘটনাবহুল ২০১৯-এর অনেক ঘটনার রেশ নিয়েই মানুষ এগিয়ে যাবে। নতুন বছরে প্রত্যাশা নিয়ে সিলেট প্রতিদিন কথা বলেছে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার লোকজনের সাথে। তাদের চাওয়া-পাওয়া নিয়ে লিখেছেন ইমরান ইমন। আজকের প্রতিবেদন শিক্ষার্থীদের ভাবনা নিয়ে।

রচিত হোক একটি পরিচ্ছন্ন কাব্য : পায়েল
যান্ত্রিক সভ্যতার দেওয়াল ভেদ করে স্বপ্নগুলো পৌছে যাক-সকল পর্যায়ে। মুক্ত বাতাসের শীতল পরশে সতেজ হয়ে উঠুক প্রতিটি শ্রমজীবি মানুষ। স্বপ্নের স্বাদ পৌছে যাক অক্লান্ত পরিশ্রম করা স্বপ্নময়ী সকল মানুষের আঙিনায়। আশা করবো-স্বচ্ছতার প্রতীক হয়ে আসুক নতুন বছর। নতুন বছরেই আমার দেশে রচিত হোক একটি পরিচ্ছন্ন কাব্য। যে কাব্য স্পর্শ করবে না অশুভ ছায়া আর ত্যক্তময় মনুষ্য চিন্তার মস্তিষ্ক। নতুন বছরের প্রার্থনা, নৈতিকতার বন্ধনে আবদ্ধ হব আমরা।

সোনিয়া জাহান পায়েল
বিবিএ (ম্যানেজমেন্ট) ৩য় বর্ষ।
সরকারি দক্ষিণ সুরমা কলেজ, সিলেট।

দেশ থেকে কমে যাবে দুর্বৃত্তের সংখ্যা : সায়েম আহমেদ
পৃথিবীর নিয়মেই সময় চলে যাবে। আসবে নতুন বছর। স্বপ্নও আসবে নতুন করে। স্বপ্ন হরণ নয়, নতুন বছরের শুরুতেই চাই-স্বপ্নের বাস্তবায়ন। আর একটি কথা হলো দেশপ্রেমকে জাগিয়ে তুলতে হবে। বিনম্র শ্রদ্ধায় স্মরণ করতে হবে শহীদদের। তাই নতুন বছরের প্রথম চাওয়া হোক ‘বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি’ পুষ্পস্তবক এ লিখার আগে অন্তরে ধারন করা। নতুন বছরের শেষ চাওয়া হলো- প্রতিটি ‘আমি’ যেন স্বস্ব স্থান থেকে সত্য সুন্দরের পথে থাকে। একজন ‘আমি’ সত্য সুন্দরের পথে চলা মানে হচ্ছে দেশ থেকে একজন দুর্বৃত্ত কমে যাওয়া।

সায়েম আহমেদ
রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ (৩য় বর্ষ)
এম সি কলেজ, সিলেট।

লোক দেখানো কাজগুলোকে বিদায় দিতে হবে : মুশতাক হাসান
শিক্ষা ব্যবস্থার প্রতি বছরের শুরতেই জোর দিতে হবে। প্রচলিত ব্যবস্থা মেধানির্ভর নয়,মেধার প্রতিবন্ধকতা হিসেবে কাজ করছে। শিক্ষা ব্যবস্থা হয়ে গেছে পরিবার, সমাজ আর লোক দেখানোর উপরে ভিত্তি করে। যেমন-আমি একটি বিষয় নিয়ে পড়তে চাই অথচ পরিবার আমার ঘাড়ে চাপিয়ে দেয় অন্য একটি বিষয়। আমি হতে চাই শিক্ষক, কিন্তু আমাকে বলা হয়- বাবার দরবারে মানত আছে তোমাকে ডাক্তার হতে হবে। হতে চাই সমাজসেবক পরিবার বলে কুস্তীগির হও। পরিবার বা সমাজের কথা হচ্ছে তুমি পারো আর নাই পারো, তোমাকে লোক দেখানো কাজগুলো করতেই হবে। পরিবারের এমন অহমিকা বা একরোখা সিদ্ধান্তের জন্য কত সন্তানের জীবন বিপর্যয়ের দিকে ধাবিত হয়। আশাকরি, আমরা নতুন বছরে লোক দেখানো কাজ গুলিকে বলি দিতে পারবো।

মুশতাক হাসান
বাংলা বিভাগ (৩য় বর্ষ)
এম সি কলেজ, সিলেট।

চাই-প্রত্যাশার নতুন সূর্য্য : উবায়দা
আসছে নতুন বছর। নতুন বছরকে ঘিরে আলাদা আলাদা পরিকল্পনা প্রত্যেকেরই। তবে নতুন বছর যেন আমাদের প্রত্যেকের জন্য মঙ্গলবার্তা নিয়ে আসে এটাই চাওয়া। নতুন বছরে চাই-প্রত্যাশার নতুন সূর্য্য। নতুন বছরকে ঘিরে আমরা যেন প্রত্যেকে নূন্যতম একটি ভালো কাজ করি। যা আমাদের সমাজ ও রাষ্ট্রের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করবে। যেমন, আমি রাস্তাঘাটে ময়লা ফেলব না! আপনি..?

শেখ উবায়দা ইসলাম
প্রাণিবিজ্ঞান বিভাগ (২য় বর্ষ)
এম সি কলেজ, সিলেট।

দেশের উন্নতি চাই সবার আগে : মশিউর
নিয়মেরই নিগড়ে বাঁধা অনিয়মের নিত্য ঘটনা ঘটমান এখনকার বিশ্ব জুড়েই। আমরা দেখেছি ২০১৯ সালের কাঙ্খিত-অনাকাঙ্খিত অনেক রাষ্ট্রীয় ঘটনাবলী। অনেক মর্মপীড়াদায়ক অপরাজনীতির চক্রে অনেক প্রাণ সংহারের সকরুণ ঘটনাবলী। অনেক অগ্নিদাহে হয়েছি জর্জরিত। অপর বেদনায় ব্যথিতচিত্তে করেছি বিচার দাবি। অনেক অনিয়মের মাঝারে চেয়েছি দেশের উন্নতি। নতুন ব্রীজ, নতুন আশার হাতছানিতে মেতে উঠেছি। অর্থাৎ আমরা মনেপ্রাণে প্রাণিত হই যা কিছু শুভ তারই পানে। নতুন বছরে এমন কোন হৃদয়বিদারক ঘটনা যেন না আসে আমাদের দেশে, এই কামনা করি।

মশিউর রহমান
ইংরেজি বিভাগ (৩য় বর্ষ)
এম.সি.কলেজ, সিলেট।

দুর্নীতিমুক্ত স্বদেশ চাই : চমক
সবার আগে বাস্তবায়ন চাই-দুর্নীতিমুক্ত দেশের। কারণ-সাধারণ মানুষ দুর্নীতি করেন না বা করার সুযোগও নেই। দুর্নীতিতে জড়িত দেশের বিবেকহীন ক্ষমতাবান অসৎ চরিত্রের ব্যক্তিবর্গ। যারা দেশপ্রেমিক এবং দেশের মানুষকে ভালবাসে তারা কখনো দুর্নীতি করতে পারে না। নতুন বছরে নতুন করে প্রত্যাশা, একটি দুর্নীতি মুক্ত সুস্থ সুন্দর বাংলাদেশ চাওয়া।

চিন্ময় দেব চমক
প্রানিবিজ্ঞান বিভাগ (২য় বর্ষ)
এম সি কলেজ, সিলেট।

সবার মাঝে নতুন সুচিন্তা উদিত হোক : বিশাল
‘ধন-ধান্যে পুষ্পে ভরা আমাদের এই বসুন্ধরা’ । নতুন বছর সবার জন্য সুখের হোক। শান্তির হোক। বন্ধ হোক হানাহানি বিদ্বেষ। গড়ে উঠুক সম্প্রীতি। ভ্রাতৃত্বের বন্ধন। নতুন বছরে সবার মাঝে নতুন সুচিন্তা উদিত হোক। সবার মাঝে মানবতাবোধ জাগ্রত হবে, এই প্রত্যাশা করি।

অর্ণিশ দত্ত বিশাল
দর্শন বিভাগ (২য় বর্ষ)
মদন মোহন কলেজ, সিলেট।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ ২৪ খবর