প্রথম শ্রেষ্ঠ প্রতিবন্ধী কণ্ঠশিল্পী প্রতিযোগিতার বাছাইয় সম্পন্ন : ইয়েস কার্ড পেয়েছে ১৮ জন

প্রকাশিত: 5:10 PM, November 13, 2018

প্রথম শ্রেষ্ঠ প্রতিবন্ধী কণ্ঠশিল্পী প্রতিযোগিতার বাছাইয় সম্পন্ন : ইয়েস কার্ড পেয়েছে ১৮ জন

সিলেটে প্রথম বারের মত অনুষ্ঠিত হয়ে গেল সিলেট বিভাগের প্রতিবন্ধী (বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন) শিল্পীদের সংগীত প্রতিভা অন্বেষণে ‘শ্রেষ্ঠ প্রতিবন্ধী কণ্ঠশিল্পী প্রতিযোগিতায়-২০১৮’ এর বাছাই পর্ব।

মঙ্গলবার সিলেট নগরের জল্লারপাড় রোডের পশ্চিম জিন্দাবাজারস্থ হাসন রাজা জাদুঘর সংলগ্ন গ্রীন ডিজএ্যাবলড ফাউন্ডেশন (জিডিএফ)’র কার্যলয় প্রাঙ্গণে বাছাইপর্ব অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ১০টা থেকে বাছাই পর্বের অডিশন রাউন্ড শুরু হলে বিভাগের প্রায় ৭০জন প্রতিযোগী দুটি বিভাগে অংশ নেয়। তিনজনের বিচারক প্যানেল বাছাই পর্বে দায়িত্ব পালন করেন।

গ্রীন ডিজএ্যাবলড ফাউন্ডেশন (জিডিএফ)’র আয়োজনে, বেঙ্গল এ্যাডভাটিজিং এর সহযোগিতায় যারা প্রতিযোগিতা আয়োজনে বিশেষ সহযোগিতা দিচ্ছে সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেট। মঙ্গলবার প্রতিযোগিতা উপলক্ষে অনুষ্ঠানস্থল ছিল সবরকম প্রতিবন্ধী অংশগ্রহণকারী শিল্পীদের উচ্ছাসে ভরপুর।
সকাল সাড়ে ১১টায় বাছাই পর্বের প্রতিযোগিতা পরিদর্শনে আসেন সিলেট সিটি কর্পোরেশন এর মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। তিনি প্রতিবন্ধী শিল্পীদের প্রতিযোগিতা প্রত্যক্ষ করেন এবং সিলেট সিটি কর্পোরেশন থেকে প্রতিবন্ধীদের কল্যাণে সবরকম সহযোগিতার আশ^াস প্রদান করেন। তিনি এইরকম প্রতিযোগিতার জন্য আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান।

বেলা দুইটা পর্যন্ত একটানা এই প্রতিযোগিতায় বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন সিলেট বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী হিমাংশু বিশ^াস, বিশিষ্ট রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী অনিমেষ বিজয় চৌধুরী, সংগীত শিল্পী রাজিয় সুলতানা লাভলী লস্কর। বাছাই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীদের মধ্য থেকে বিচারক মন্ডলির রায়ে ১৮ জন প্রতিযোগিকে চূড়ান্ত পর্ব গ্রান্ড ফাইালের জন্য মনোনিত করা হয়।

আগামী ১৬ নভেম্বর শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় রিকাবীবাজার কবি নজরুল অডিটোরিয়ামে চুড়ান্ত মনোনিতদের নিয়ে গ্রান্ড ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে।

বাছাই প্রতিযোগিতা শেষে সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠানে শ্রেষ্ঠ প্রতিবন্ধী কণ্ঠশিল্পী প্রতিযোগিতা বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক বায়েজিদ খান এর সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব রজত কান্তি গুপ্তের পরিচালনায় প্রতিযোগিদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন- বিশিষ্ট বাচিক শিল্পী ও প্রতিযোগিতার উপদেষ্টা মোকাদ্দেস বাবুল, সম্মিলিত নাট্য পরিষদের সভাপতি ও প্রতিযোগিতার উপদেষ্টা মিসফাক আহমদ চৌধুরী মিশু, জিডিএফ’র মহাসিচব জি.ডি. রুমু ও সম্মানিত বিচারক মন্ডলীবৃন্দ।

এ সময় উপস্থিত প্রতিবন্ধী বিষয়ক কর্মকর্তা সিদ্ধার্থ সংকর রায়, জিডিএফ’র চেয়ারম্যান কবির আহমদ, ভাইস চেয়ারম্যান, প্রধান শিক্ষক এ.এইচ. ইসরাইল আহমদ, কোষাধ্যক্ষ মাছুম আহমদ চৌধুরী, সদস্য প্রমেশ দত্ত, ম্যানেজার স্বপন মাহমুদ, বেঙ্গল এডভাইটাইজিং এর হেড অব অপারেশন রাসেদ খান, রহমানিয়া প্রতিবন্ধী কল্যাণ ফাউন্ডেশনের সভাপতি আলহাজ¦ আতাউর রহমান খান সামছু, সিলেট বুদ্ধি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুরাইয়া নাসরিন, সাবিনা ইয়াসমিন, খালেদা আক্তার, নমিতা রাণী দেব, আল-আমিন আহমদ নাঈম প্রমুখ।

১৬ নভেম্বর শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় রিকাবীবাজার কবি নজরুল অডিটোরিয়ামে গ্রান্ড ফাইনালে সকলের জন্য আসন খালি থাকা সাপেক্ষে উন্মুক্ত থাকবে। সিলেট বিভাগের প্রতিবন্ধী বিষয়ক সকল সংস্থা প্রতিযোগিতা সফলে সার্বিক সহযোগিতা করছেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

  •  

সর্বশেষ ২৪ খবর