বালাগঞ্জে আকস্মিক বন্যায় ৫টি ইউনিয়ন প্লাবিত

প্রকাশিত: 4:38 PM, July 15, 2019

বালাগঞ্জে আকস্মিক বন্যায় ৫টি ইউনিয়ন প্লাবিত

বালাগঞ্জ প্রতিনিধি
টানা বৃষ্টিপাত ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ডলে দেশের বিভিন্ন জায়গায় মত বালাগঞ্জেও বন্যার প্রকোপ দেখা দিয়েছে। টানা বৃষ্টিপাতের কারণে কুশিয়ারা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার উপরে প্রবাহিত হচ্ছে। এরফলে নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হয়েছে। উপজেলায় ৬টি ইউনিয়নের মধ্যে ৫টি ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হওয়ায় পানিবন্দি হয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছে মানুষ।

সরেজমিনে দেখা যায়, গত কয়েক দিনের টানা বর্ষণে কুশিয়ারা নদীর তীরঘেঁষা বালাগঞ্জ সদরের স্বাস্থ্য কমপ্রেক্সের সম্মুখের রাস্তা, বাজারের ভেতরের রাস্তা, বালাগঞ্জ সরকারি ডিএন উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠ, তয়রুন নেছা বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের ভেতর, প্রবেশের রাস্তা ও মাঠ, উপজেলা প্রশাসনের মূল সড়ক ও উপজেলা প্রশাসনের মাঠ পানিতে ডুবে গেছে এবং উপজেলা প্রশাসনিক ভবনের নিচতলার অফিসগুলোর ভেতরে পানি প্রবেশ করেছে। সেই সাথে দেখা দিয়েছে পানিবাহিত নানা রোগ। যার ফলে বন্যাআক্রান্ত এলাকাগুলোতে সাস্থ যুকির প্রভাব পড়েছে।

পূর্ব পৈলনপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন জানান, কুশিয়ারা ডাইকের প্রায় পনের জায়গায় ভাঙন দেখে দিয়েছে। যার প্রভাবে ১৩গ্রাম প¬াবিত হয়ে ১০ হাজার মানুষ পানি বন্দী হয়ে পড়েছে।

বালাগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তাকুর রহমান মফুর বলেন, শেরপুর থেকে বালাগঞ্জ বাজারের কুশিয়ারা ডাইকের ভাঙ্গনে হামছাপুর, জালালপুর, গালিমপুর গ্রামের বন্যা পতিরোধক বাধেঁর ভাটপাড়া, পৈলনপুর,ফাজিলপুর, পূর্ব ইছাপুর এ সকল স্থান ডাইকের বাধ ভেঙে পানি বেতরে প্রবেশ করছে সেই সঙ্গে বালাগঞ্জের সাথে পূর্ব পৈলনপুরের সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। একি সাথে ফেঞ্চুগঞ্জ থেকে বালাগঞ্জ রোডের ডাইকের বাজার সংলগ্ন রাস্তা ফাটল দেখা দেয়ায় যুকিপূর্ন ভাবে গাড়ি চলাচল করছে। উপজেলার ৯টি প্রাইমারি ও ৪টি মাধ্যমিক স্কুল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ৩টি আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে ইতিমধ্যে গালিমপুর হাইস্কুল ও পূর্ব পৈলনপুর হাইস্কুলে বন্যার্ত মানুষজন আশ্রয় নিয়েছেন এবং পূর্ব গ্রৌরীপুর বি কে এম হাই স্কুলে মানুষ আসতে শুরু করেছেন।

প্রশাসনিকভাবে ৫টন চাল ও ১০০ প্যাকেটশুকনো খাবার হাতে এসে পৌছেছে। নিজ নিজ অবস্থান থেকে বন্যার্ত মানুষের পাশে দাড়াতে সমাজের বির্তবাদের প্রতি তিনি আহবান জানান।

বালাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজমুস সাকিব দৈনিক বিজয়ের কন্ঠকে জানান, জরুরি বিত্তিতে আজ ১৫জুলাই ত্রান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির জরুরী সভা আহবান করা হয়েছে যাথে ত্রান সামগ্রী দূর্গত এলাকায় দূত পৌছানো যায় সেই সাথে বন্যা মোকাবেলায় আমরা সর্বদা প্রস্তুত রয়েছি। গত শনিবারে পূর্বগৌরিপুর ও পূর্বপৈলনপুরের ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা পরিদর্শন করেছেন বালাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ নাজমুস সাকিব, সহকারী কমিশনার (ভুমি) সুমন চন্দ্র দাস।

  •  

সর্বশেষ ২৪ খবর