বিত্তশালীদের মধ্যে চিত্তের সমাহার না থাকলে সমাজের উপকার হবে না : বিচারপতি খিজির আহমদ চৌধুরী

প্রকাশিত: 11:58 AM, November 4, 2018

বিত্তশালীদের মধ্যে চিত্তের সমাহার না থাকলে সমাজের উপকার হবে না : বিচারপতি খিজির আহমদ চৌধুরী

গোলাপগঞ্জ সংবাদদাতা
বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের হাইকোট বিভাগের বিচারপ্রতি খিজির আহমদ চৌধুরী বলেছেন, বিত্তশালীদের মধ্যে চিত্তের সমাহার না থাকলে সমাজের কোন উপকার হবে না। হাজার কোটি টাকার মালিক হওয়ার পরও অনেকে মানুষের হৃদয়ে স্থান পায়নি, এক্ষেত্রে সমাজের কল্যাণে কাজ করে অনেকেই অমর হয়ে আছেন। তিনি আফ্রিকার প্রয়াত সাবেক প্রেসিডেন্ট ন্যানসন ম্যান্ডেলার কথা উল্লেখ করে বলেন, অনেক ব্যক্তি এ পৃথিবীতে ৩০/৪০ বছর রাষ্ট্র শাসন করার পরও তারা মানুষের হৃদয়ে স্থান পায়নি। অথচ মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করে ২৭ বছর জেল খেটে ম্যান্ডেলা আজ পৃথিবীর কোটি কোটি মানুষের হৃদয় জুড়ে আছেন। তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন পাঠ্য বই পড়ার পাশাপাশি কম্পিউটার সম্পর্কে জ্ঞান রাখা খুবই দরকার। আজ তথ্য প্রযুক্তির ক্ষেত্রে বৈপ্লবিক পরিবর্তন এসেছে। প্রযুক্তির জ্ঞানকে কাজে লাগিয়ে শিক্ষার্থীরা যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে উঠা সম্ভব না হলে আগামী দিনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করা কঠিন হয়ে পড়বে। তিনি প্রবাসীদের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে বলেন তারা আমাদের জাতীয় অগ্রগতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন। বাংলাদেশের যত লোক প্রবাসে আছে পৃথিবীর অনেক দেশে এত লোক নেই। বিদেশ যাওয়ার পূর্বে কারিগরী জ্ঞান লাভ করে সেখানে গেলে ভাল সুযোগ সুবিধা পাবার সম্ভবনা থাকে। তিনি আছিয়া কুতুব ফাউন্ডেশনের কার্যক্রমের প্রশংসা করে বলেন এ প্রতিষ্ঠান সামাজিক অঙ্গনে গুরুদায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে। প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান এডভোকেট মোস্তাক আহমদ চৌধুরী নিজ পিতা-মাতাকে অমর করে রাখতে ফাউন্ডেশন গড়ে তুলেছেন। তাকে অনুস্মরণ করে এভাবে সামাজিক কার্যক্রমে আমরা প্রত্যেই নিজ নিজ অবস্থান করে সম্পৃক্ত হতে পারি। সামাজিক কার্যক্রমে সরকারি উদ্যোগের পাশাপাশি ব্যক্তি উদ্যোগ আরো গতিশীল করার জন্য তিনি সবার প্রতি আহবান জানান।

তিনি শনিবার সকাল ১১টায় গোলাপগঞ্জের বারকোটে সমাজ সেবামুলক প্রতিষ্ঠান আছিয়া কুতুব ফাউন্ডেশন আয়োজিত গুণীজন সম্মাননা ও প্রাথমিক বৃত্তি পরীক্ষার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের প্রখ্যাত আইনজীবি এডভোকেট মোস্তাক আহমদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সঞ্চালনায় গুণিজন সংবর্ধনা ও বৃত্তি পরীক্ষার পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন সিলেটের চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাওছার আহমদ, সাবেক মহিলা এমপি সৈয়দা জেবুন্নেছা হক, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের ডীন ও বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. মোছাদ্দেক আহমদ চৌধুরী, গোলাপগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আমিনুল ইসলাম রাবেল, মুন্সীগঞ্জ জেলার মীর কাদিম পৌরসভার মেয়র শহীদুল ইসলাম শাহীন, গোলাপগঞ্জ প্রেসকাব সভাপতি আব্দুল আহাদ, পল্লী বিদ্যুৎ গোলাপগঞ্জ জোনাল অফিসের ডিজিএম মামুন অর রশীদ।

এসময় বক্তব্য রাখেন গোলাপগঞ্জ পৌরসভার কাউন্সিলর ফজলুল আলম, ব্রিটিশ আইডিয়াল স্কুলের প্রধান শিক্ষক আজমত আলী, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ফয়ছল আহমদ চৌধুরী, বিশিষ্ট সমাজসেবী আব্দুল মালিক লাল মিয়া, ফাউন্ডেশনের শিক্ষক মাওলানা আব্দুর রাজ্জাক।

অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- গোলাপগঞ্জ প্রেসকাবের সেক্রেটারী মাহফুজ আহমদ চৌধুরী, গোলাপগঞ্জ সাংবাদিক কল্যাণ সমিতির সভাপতি মাহবুবুর রহমান চৌধুরী, সাংবাদিক ও শিক্ষক আজিজ খান, সিএনএন টিভির প্রতিনিধি শফীক উদ্দিন আহমদ, গোলাপগঞ্জ অনলাইন প্রেসকাবের সেক্রেটারী জাহিদ উদ্দিন, গোলাপগঞ্জ বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সাইকুজ্জামান চৌধুরী শিমু, শিক্ষক সেলিম আহমদ প্রমুখ। এসময় ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে আইন পেশায় বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের সিনিয়র এডভোকেট এএম আমিন উদ্দিন, শিক্ষকতায় গোলাপগঞ্জ সরকারি এমসি একাডেমীর প্রিন্সিপাল মনসুর আহমদ চৌধুরী, ব্যবসায়িক ব্যক্তিত্ব ও প্রতিষ্ঠান হিসেবে আলীম ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান আলিমুছ সাদাত চৌধুরী, সমাজ সেবায় কালীজুরী প্রভাতী সংঘকে সংবর্ধিত করে সম্মাননা ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়।

একই সময়ে আছিয়া কুতুব ফাউন্ডেশ কর্তৃক আয়োজিত ২০১৭ সালের প্রাথমিক বৃত্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী কৃতি শিক্ষার্থীদের মধ্যে নগদ অর্থ, ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়েছে।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ ২৪ খবর