মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে বিশ্বনাথে সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা

প্রকাশিত: 7:58 PM, March 14, 2020

মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে বিশ্বনাথে সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি : ‘হৃদয়ে গভীর অনুভূতির নাম শেখ মুজিব-তাঁর নামেই মানুষ প্রকৃতির মতো রয়েছে সজীব’ প্রতিপাদ্যকে সামনে নিয়ে সিলেটর বিশ্বনাথে মুজিববর্ষ ও মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ও পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার উপজেলার বৈরাগীবাজারে শাপলা সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদের আয়োজনে দিনব্যাপী এ সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ও পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়।

.

বিজয়ীদের পুরষ্কার বিতনী সভায় বক্তারা বলেছেন, বঙালীর ঐতিহ্যবাহী বিশুদ্ধ শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতির লালন ও বিকাশের জন্য শিশু-কিশোরদের মধ্যে সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার আয়োজন অপরিহার্য। তারা বলেন, আমাদের জাতীয় চেতনার জাগরণ ও মূল্যবোধের অবক্ষায় প্রতিরোধে সংস্কৃতির র্চ্চার বিকল্প নেই। সংষ্কৃতি র্চ্চার মাধ্যমে শিশু-কিশোরদের চিন্তা জগতে অসাম্প্রদায়িক চেতনা সঞ্চারিত করতে হবে। তারা আরো বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, আদর্শ ও মূল্যবোধভিত্তিক জাতি গড়ে তুলতে হলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের কর্মময় জীবন সামাজিকভাবে তাদের সামনে তুলে ধরতে হবে। বক্তারা সংস্কৃতির র্চ্চার মাধ্যমে উন্নত জীবন গড়ে তোলার জন্য শিক্ষার্থীদের প্রতি আহবান জানান।

.
শাপলা সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সাইদুর রহমান সাঈদ’র সভপাতিত্বে ও সদস্য সালেহ আহমদ সাকী এবং বিশ্বনাথ থিয়েটারের সভাপতি আনহার আলীর যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, বিশ্বনাথ উপজেলার গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন, একলিমিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক আশরাফ আহমদ, হাজী মফিজ আলী বালিকা স্কুল এন্ড কলেজের সহকারী শিক্ষক আব্দুল হান্নান ইউজেটিক্স, শিক্ষক কাজল পাল, জয়বাংলা সাহিত্য ও সংস্কৃতি পরিষদ দশপাইকা বাজার শাখার উপদেষ্টা কবির আহমদ, বিশ^নাথ থিয়েটারের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি কামাল মুন্না, চাউল ধনী স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক শফিক আহমদ পিয়ার।

.
এসময় উপস্থিত ছিলেন বশ্বনাথ থিয়েটারের বিল্ড ক্যারিয়ার একাডেমীর শিক্ষক মনসুর আলী, নাট্যকর্মী আহমেদ জুয়েল, শফিক রুহিন, জয়বাংলা সাহিত্য ও সংস্কৃতি পরিষদ দশপাইকা বাজার শাখার সভাপতি মইন উদ্দিন, সংগঠক আবুল কাহার, রওনক আহমদ এনাম, সোলেমান আহমদ, লোকমান হোসেন, ফয়ছল আহমদ, রুমেল মিয়া, প্রবাসী ইউসুফ আলী।

.
প্রতিযোগিতায় ৫টি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ৩টি উচ্চ বিদ্যালয়ের শতাধিক শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে চিত্রাংকন, সংগীত, কবিতা আবৃত্তি, বক্তৃতা (ক ও খ গ্রুপ) ও সাধারণ জ্ঞানসহ ৫টি বিষয়ে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। বিচারকদের মাধ্যমে প্রত্যেক বিষয়ে ৩জন করে ৩০জন বিজয়ীদের মধ্যে পুরষ্কার ও সনদ প্রদান করা হয়। এছাড়াও বিশেষ পুরষ্কার আরো ২১জনকে দেওয়া হয়েছে।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ ২৪ খবর