লিডিং ইউনিভার্সিটিতে নারী উদ্যোক্তা: নতুন দিগন্ত বিষয়ক সেমিনার

প্রকাশিত: ২:৩০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৩, ২০১৮

লিডিং ইউনিভার্সিটিতে নারী উদ্যোক্তা: নতুন দিগন্ত বিষয়ক সেমিনার

সিলেটের প্রথম বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় লিডিং ইউনিভার্সিটিতে নারী উদ্যোক্তা বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রোববার ২৩ ডিসেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্যালারী-০১ এ অনুষ্ঠিত সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লিডিং ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ কামরুজ্জামান চৌধুরী।

কী-নোট স্পীকার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট উইমেন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এর প্রেসিডেন্ট স্বর্ণলতা রায়।

লিডিং ইউনিভার্সিটির ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের উদ্যোগে সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মেজর (অব) মো: শাহ আলম, পিএসসি এবং ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. ওয়াহিদুজ্জামান খান।

সেমিনারে নারী উদ্যোক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিলেটের চাট বাজ এর স্বত্তাধিকারী সৈয়দা খাদিজা আক্তার। এতে সিলেট উইমেন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এর ডিরেক্টর সৈয়দা রাবেয়া আক্তার রিয়াসহ অন্যান্য সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

বর্তমান সরকারের নারীর ক্ষমতায়ন এবং নারী উন্নয়নে গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপ এর কথা উল্লেখ করে প্রধান অতিথির বক্তব্যে লিডিং ইউনিভার্সিটির উপচার্য প্রফেসর ড. মো: কামরুজ্জামনা চৌধুরী বলেন, লিডিং ইউনিভার্সিটিতে ভর্তিচ্ছু ছাত্রীদের জন্য ১০% ওয়েভার এর ব্যবস্থা রয়েছে। এ বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের প্রায় অর্ধেকের মতো ছাত্রী এবং ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের ৫০% শিক্ষকই নারী। অন্যান্য বিভাগ এবং দপ্তরেও উল্লেখযোগ্য সংখ্যক নারী শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারী রয়েছেন।

তিনি বলেন স্বনির্ভর বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে পুরুষদের পাশাপাশি নারীদেরও সমান ভূমিকা রয়েছে। তাই উন্নয়ন কর্মকান্ডে নারীদের অংশগ্রহণে উচ্চশিক্ষা সহায়ক ভুমিকা রাখছে এবং লিডিং ইউনিভার্সিটিতে এ উচ্চশিক্ষা গ্রহণের জন্য সুন্দর পরিবেশ ও পরিবহন ব্যবস্থাসহ সকল ধরনের সুযোগ সুবিধা রয়েছে।

সিলেট উইমেন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এর প্রেসিডেন্ট স্বর্ণলতা রায় বলেন, উদ্যোক্তা হতে হলে ইচ্ছাশক্তি এবং চেষ্টা থাকতে হবে। সেজন্য বড় ধরনের অফিস এর প্রয়োজন নেই। সামাজিক দৃষ্টিভঙ্গি এবং অনেক প্রতিকূলতাকে অতিক্রম করে অদম্য সাহসিকতার সাথে লক্ষ্য ঠিক করে এগিয়ে যেতে হবে। তাহলেই সফলতা আসবে। বর্তমান সরকার নারীদের উদ্যোক্তা হবার জন্য বিভিন্নভাবে সুযোগ সুবিধাসহ উৎসাহ প্রদান করে আসছে। নারীর ক্ষমতায়ন এ সরকার দৃঢ় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন এ তরুন প্রজন্মই আগামীতে দেশের নেতৃত্ব দিবে।

তিনি বলেন, কাজের জন্য কারোপ্রতি দারস্ত না হয়ে কর্মক্ষেত্র তৈরী করতে হবে। বর্তমানে আমাদের দেশে অনেক নারীরা তাদের নিজস্ব উদ্যোগে স্বাবলম্বী হয়েছে এবং হচ্ছে। তিনি উদ্যোক্তা হতে হলে কী কী করনীয় সে বিষয়ে মূল্যবান দিক নির্দেশনা দেন এবং এ সেমিনার এর আয়োজন করার জন্য লিডিং ইউনিভার্সিটিকে ধন্যবাদ প্রদান করেন।

ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের শিক্ষক তাহরিমা চৌধুরী জান্নাত এর সঞ্চালনায় সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ওয়াহিদা আক্তার।

সেমিনারে লিডিং ইউনিভার্সিটির ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ ২৪ খবর