শুভ জন্মদিন ছড়াকার সুকুমার বড়ুয়া

প্রকাশিত: 12:50 PM, January 5, 2020

শুভ জন্মদিন ছড়াকার সুকুমার বড়ুয়া

ডেস্ক প্রতিবেদন : সুকুমার বড়ুয়া বাংলাদেশের একজন প্রখ্যাত ছড়াকার। তার ছড়াগুলো বুদ্ধিদীপ্ত, তীক্ষ্ণ, শানিত কিন্তু কোমল শব্দে লেখা। তিনি বাংলা সাহিত্যের ছড়া ভাণ্ডার।
আজ এ প্রখ্যাত ছড়াকারের শুভ জন্মদিন। ১৯৩৮ সালের ৫ জানুয়ারি চট্টগ্রাম জেলার রাউজান থানার মধ্যম বিনাজুরি গ্রামে সুকুমারের জন্ম হয়।

সুকুমার বড়ুয়া প্রায় ৬০ বছর ধরে শুধু ছড়া লিখে ‘ছড়ারাজ’, ‘ছড়াশিল্পী’, ‘ছড়াসম্রাট’ ইত্যাদি নানা অভিধায় অভিষিক্ত হয়েছেন। পাগলা ঘোড়া, ভিজে বেড়াল, চিচিংফাঁক, লেজ আবিষ্কার ইত্যাদিসহ ১৯টি শিশুকর্ম উপহার দিয়েছেন এ ছন্দগুরু ছড়াকার।

তার ছড়ায় বিষয়-বৈচিত্র্য, সরস উপস্থাপনা, ছন্দ ও অন্তমিলের অপূর্ব সমন্বয় ঘটেছে। প্রাঞ্জল ভাষায় আটপৌরে বিষয়কেও তিনি তার ছড়ায় ভিন্নমাত্রা দিয়েছেন।

বর্তমানে শিশুসাহিত্যকর্ম নিয়ে সুকুমার বড়ুয়ার তরুণদের প্রতি উপদেশ- তোমরা বলবে কম, লিখবে কম। কিন্তু তোমরা ভাববে বেশি।

এ ছড়াকারের পড়াশোনা অর্থনৈতিক সংকটে পড়ে তেমনটা এগোইনি। মামাবাড়ির স্কুলে হাতেখড়ি শেষে সুকুমার বড়দিদির বাড়িতে এসে ‘ডাবুয়া স্কুল’-এ ভর্তি হন৷ কিন্তু সেই স্কুলে দ্বিতীয় শ্রেণি পর্যন্ত পড়ার পর তার পড়ালেখা বন্ধ হয়ে যায়।

অল্প বয়স থেকেই তিনি বিভিন্ন সময় মেসে কাজ করেছেন। জীবিকা নির্বাহের জন্য একটা সময় তিনি ফলমূল, আইসক্রিম, বুট ও বাদাম ইত্যাদি ফেরি করে বিক্রি করেছেন৷

১৯৬২ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারী হিসেবে ৬৪ টাকা বেতনে চাকরি হয় সুকুমার বড়ুয়ার৷ ১৯৯৯ সালে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টোরকিপার হিসেবে অবসর গ্রহণ করেন।

ছড়াকার সুকুমার বড়ুয়ার জন্মদিন উপলক্ষে সাহিত্যবিশারদ সুহৃদ নামে একটি সংগঠন শুক্রবার বিকালে চট্টগ্রাম একাডেমি ফয়েজ নুরনাহার মিলনায়তনে সংবর্ধনা ও নিবেদিত লেখা পাঠের অনুষ্ঠান আয়োজন করেছে।

আজ সুকুমার বড়ুয়ার নিজ গ্রাম মধ্যম বিনাজুরিতে সুকুমার তরুণ সংঘ জন্মদিন উদযাপন, ছড়াপাঠ ও সংবর্ধনার আয়োজন করেছে।

এ প্রখ্যাত ছড়াকার তার সৃষ্টিশীল জীবনে প্রায় ২৪টি পুরস্কার পেয়েছেন। তম্মধ্যে বাংলা একাডেমী সাহিত্য পুরস্কার (১৯৭৭), বাংলাদেশ শিশু একাডেমী সাহিত্য পুরস্কার (১৯৯৭) ও একুশে পদক (২০১৭) অন্যতম।

  •  

সর্বশেষ ২৪ খবর