সিলেটে অবৈধ সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি বাতিলের দাবি জেলা জাতীয় পার্টির

প্রকাশিত: 7:41 PM, March 9, 2020

সিলেটে অবৈধ সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি বাতিলের দাবি জেলা জাতীয় পার্টির

ডেস্ক প্রতিবেদন : কেন্দ্র থেকে সদ্য ঘোষিত সিলেট জেলা জাতীয় পার্টির ১৫ সদস্য বিশিষ্ট সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটিকে অবৈধ ও গঠনতন্ত্র বিরোধী উল্লেখ করে অবিলম্বে তা বাতিলের দাবি জানিয়েছেন জেলা জাতীয় পার্টির নেতৃবৃন্দ। সোমবার নগরীর একটি অভিজাত রেস্টুরেন্টের হলরুমে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন জেলা জাতীয় পার্টির তৃণমূল নেতৃবৃন্দ গঠিত কমিটির আহবায়ক মো. ইশরাকুল হোসেন শামীম।
লিখিত বক্তব্যে শামীম বলেন, ২০১৭ সালের ২৯ মার্চ জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান, সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মো. এরাশাদ সিলেট জেলা জাতীয় পার্টির ৮১ সদস্য বিশিষ্ট সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন করে দিয়েছিলেন। কিন্তু পরবর্তীতে এ কমিটি নির্দিষ্ট মেয়াদের মধ্যে কোন উপজেলা/পৌর কমিটি গঠন এবং জেলার সম্মেলন করতে না পারায় অবৈধ হয়ে যায়। এছাড়া এ কমিটির বিরুদ্ধে নানান অভিযোগও উঠে। সম্প্রতি দেখা যাচ্ছে এটিইউ তাজ রহমান ও উসমান আলী যোগসাজসে ও কিছু কুচক্রি মহলের সাথে মিলে ১৫ সদস্য বিশিষ্ট আরেকটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।
তিনি বলেন, জাতীয় পার্টির গঠনতন্ত্রের ৬ (খ) ধারা অনুযায়ি জেলা/মহানগর নির্বাহী কমিটি দ্বিবার্ষিক সম্মেলনের মাধ্যমে দুই বছর পর পর নির্বাচিত হবে। তবে কোন কারণে কমিটি গঠনে বিলম্ব হলে নতুন কমিটি গঠন না হওয়া পর্যন্ত পুরাতন কমিটি কাজ চালিয়ে যাবে। ৬ (গ) ধারায় আছে জেলা/মহানগর কমিটির সম্মেলনের জন্য নির্বাহী/আহবায়ক কমিটির সকল সদস্য কাউন্সিলর হবেন। উপজেলা/থানা কমিটি গঠনের সময় প্রত্যেক উপজেলা/থানা থেকে ২৫জন কাউন্সিলর জেলার সম্মেলনের জন্য নির্বাচিত হবেন। এছাড়া উপজেলার আওতাধীন ইউনিয়ন ও পৌরসভা কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক কাউন্সিলর হবেন। কাউন্সিলরদের ভোটে নির্বাচিত হবে জেলা/মহানগর ইউনিটের নেতৃত্ব।
কিন্তু এসব নিয়ম নীতি ও বিধি উপেক্ষা করে সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে তৃণমূলের পরীক্ষিত, সৎ ও দক্ষ নেতাকর্মীদের বাদ দিয়ে বিতর্কিত অসৎ ব্যাক্তিদের দিয়ে নতুন সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটির অনেক সদস্যই কমিটির বিরুদ্ধে অনাস্থা এনে সরে দাড়িয়েছেন। এ নিয়ে বিভিন্ন সময় সিলেটে দাঙ্গাহাঙ্গামার ঘটনা ঘটছে। যার দায়ভার এই অবৈধ কমিটিকে নিতে হবে।
ইশরাকুল হোসেন শামীম বলেন, গত ২৩ ফেব্রুয়ারি এই অবৈধ জেলা জাতীয় পার্টির সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গোপনে গোলাপগঞ্জসহ কয়েকটি উপজেলায় সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন করেছে। যা সম্পূর্ণ অবৈধ। কেননা সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির অন্য উপজেলায় আহবায়ক কমিটি গঠন করার কোন আইনগত অধিকার নাই।
তিনি এসবের জোর প্রতিবাদ জানান এবং এরুপ স্বঘোষিত জেলা ও উপজেলা কমিটি অবিলম্বে বাতিলের জোর দাবি জানান।
জাতীয় পার্টি নেতা বাহার খন্দকারের সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জাপা নেতা জহির উদ্দিন পল্টু, মুজিবুর রহমান মুজিব, আহসান হাবীব মঈন, নাহিদা আক্তার, মামুনুর রশীদ মামুন প্রমুখ।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ ২৪ খবর