সিলেট বইমেলায় বঙ্গবন্ধু সেলফি বুথ নিয়ে আগ্রহী দর্শনার্থীরা

প্রকাশিত: 4:46 PM, February 6, 2020

সিলেট বইমেলায় বঙ্গবন্ধু সেলফি বুথ নিয়ে আগ্রহী দর্শনার্থীরা

ডেস্ক প্রতিবেদন : বিয়ে, জন্মদিন, বিশেষ দিবস, আড্ডা, খাওয়া-দাওয়ায়, মেলা সব কিছুইতে একটি সেলফি না নিলে যেন অসম্পূর্ণ থেকে যায় আয়োজন। তাই সিলেট বন্ধু সভার আয়োজনে বইমেলায়ও রাখা হয়েছে ২টি সেলফি বুথ। মুজিববর্ষ উপলক্ষে শহীদ মিনারের পাশেই রাখা হয়েছে বঙ্গবন্ধু ছবিসহ একটি সেলফি বুথ ও মেলার মাঠের ডান কর্নারে রাখা হয়েছে চাটাই, ফুল দিয়ে লোকজ বিন্যাসে সুসজ্জিত আরেকটি সেলফি বুথ। বই কেনা ছাড়াও এই দুই সেলফি বুথকে ঘিরে বেশি আগ্রহ মেলায় আগত দর্শনার্থী, ক্রেতা, লেখক ও পাঠকদের। বিশেষ করে বঙ্গবন্ধু সেলফি বুথে ছবি তুলতে বেশি আগ্রহ দেখা যায় সব বয়সের দর্শনার্থীদের।

পঞ্চম দিনের মত চলছে সিলেট বইমেলা। বুধবার (৫ ফেব্রুয়ারি) বেলা তিনটা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত নগরীর চৌহাট্টাস্থ সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বইমেলা প্রাঙ্গণ মুখর ছিল বইপ্রেমীদের পদচারণায়।

বইমেলায় আগত পাঠক এবং বইপ্রেমীদের নিয়ে প্রতিদিন একটি সেলফি প্রতিযোগিতারও আয়োজন করেছে সিলেট বন্ধুসভা। প্রতিদিন সিলেট বইমেলা প্রাঙ্গণে সেলফি তুলে মেলা চলাকালীন সময়ে ইভেন্টে পোস্ট করলেই বাচাইকৃত সুন্দর সেলফি দাতাকে পুরস্কৃত করা হয়। এই প্রতিযোগিতাও অনেক সারা ফেলেছে মেলায় আগতদের মধ্যে। সেলফি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করছেন মেলার নিরাপত্তায় দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যরাও। মেলার চতুর্থ দিনে সেলফি বিজয়ী হয়েছেন পুলিশ সদস্য রতন চৌহান। আজ মেলা পঞ্চম দিন রাতে সেলফি বিজয়ী রতন চৌহানকে পুরস্কার তুলে দেন সম্মলিত সাংস্কৃতিক জোটের কেন্দ্রীয় সদস্য শামসুল আলম সেলিম।

মেলার পঞ্চমদিন সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় সিলেট বন্ধুসভার সভাপতি তামান্না ইসলামের সঞ্চালনায় লেখক মোনজবিকাশ দেব রায়ের ২টি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। ‘শক্তিভাবনা’ ও ‘রাসলীলা কীর্তন’ নামের বই ২টি প্রকাশ করেছে ঘাস প্রকাশন। এছাড়াও মেলায় সুফিয়া কামালের ‘একাত্তরের চিঠি’ বই পাঠ করেন সিলেট বন্ধুসভার বন্ধু তোফায়েল আহমেদ জুনেদ।

সিলেট বই মেলায় সেলফি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের নিয়মাবলী

সেলফি অবশ্যই বইমেলা প্রাঙ্গণে মেলা চলাকালীন সময়ে তুলতে হবে। প্রতিদিন সব্বোর্চ ২টি সেলফি পোস্ট করা যাবে। #সিলেট-বইমেলা-২০২০ #প্রথমআলো-বন্ধুসভা-সিলেট হ্যাসট্যাগ অবশ্যই ব্যবহার করতে হবে। সেলফি তোলার তারিখ ও সময় পোস্টে লিখতে হবে। সেলফি নিজ টাইমলাইনে ও সিলেট বইমেলা ২০২০ ইভেন্টে পোস্ট দিতে হবে। এই প্রতিযোগিতায় সিলেট বন্ধুসভার কেউ অংশগ্রহণ করতে পারবেন না।

এছাড়াও বইমেলায় রয়েছে আলোকচিত্র প্রতিযোগিতা। আলোকচিত্র প্রতিযোগিতায় অংশহগ্রহন করতে হলে আলোকচিত্রটি অবশ্যই কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার এ আয়োজিত সিলেট বইমেলা প্রাঙ্গণে বইমেলা কেন্দ্রিক হতে হবে। প্রতিদিন একজন ব্যক্তি ১ টি আলোকচিত্র পোস্ট করতে পারবেন। আলোকচিত্র প্রথমে নিজের ফেসবুক টাইমলাইমে পোস্ট করে পরবর্তীতে সিলেট বইমেলা ২০২০ ইভেন্টে শেয়ার করতে হবে। আলোকচিত্রটি পোস্ট করার সময় অবশ্যই #সিলেট-বইমেলা-২০২০ #প্রথম-আলো-বন্ধুসভা-সিলেট দুটি হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করতে হবে। আলোকচিত্র পোস্ট করার সময় ডিভাইসের নাম, তারিখ ও সময় উল্লেখ করতে হবে।

উল্লেখ্য, ১ ফেব্রুয়ারি থেকে ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত প্রতিদিন বেলা তিনটা থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত চৌহাট্টাস্থ সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মেলা চলবে। এই মেলা সবার জন্য উন্মুক্ত। বইমেলায় এবারও সিলটিভি প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টা থেকে নতুন বইয়ের খবর নিয়ে লাইভ দিবে। এছাড়াও প্রতিদিন মেলায় থাকবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, সাহিত্য আড্ডা, আলোচনা সভা, শিশুদের আবৃত্তি, চিত্রাঙ্কন, ফটোগ্রাফি ও সেলফি প্রতিযোগিতা ও নতুন বইয়ের মোড়ক উন্মোচন।

মেলায় ঢাকা ও সিলেটের ২৪টি প্রকাশনা ও বই বিপণন প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করে। অংশগ্রহণকারী প্রকাশনা সংস্থা এবং বইয়ের বিপণনপ্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে- প্রথমা, কথা প্রকাশ, উৎস প্রকাশন, অন্বেষা প্রকাশন, অ্যাডর্ন পাবলিকেশন,আদর্শ, বাবুই, চৈতন্য, নাগরী, বাসিয়া প্রকাশনী, শ্রীহট্ট প্রকাশ, ঘাস প্রকাশন, পা-লিপি প্রকাশন, পাপড়ি, এক রঙা এক ঘুড়ি, স্বরে ‘অ’, আহরার পাবলিশার্স, জসিম বুক হাউস, সাহিত্য রস প্রকাশনা, গার্ডিয়ান পাবলিকেশন্স, শাকিল বুক সেন্টার, সিলেট বুক সেন্টার, মারুফ লাইব্রেরি ও নাজমা বুক ডিপো।

মুজিববর্ষ উপলক্ষে এবছর সিলেট বইমেলা উৎসর্গ করা হয় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে। মেলা আয়োজনে সহযোগিতা করছে সিলেট সিটি করপোরেশন।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ ২৪ খবর