স্ত্রীকে লাইভে রেখে স্বামীর আত্মহত্যা : তোলপাড়

প্রকাশিত: 3:10 PM, November 20, 2018

স্ত্রীকে লাইভে রেখে স্বামীর আত্মহত্যা : তোলপাড়

নিজস্ব প্রতিবেদন
আমেরিকা প্রবাসী স্ত্রীকে ভিডিও কলে লাইভে রেখে আত্মহত্যা করেছেন এক স্বামী। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার উত্তর ফরিদপুর গ্রামে হৃদয়বিদারক এ ঘটনা ঘটে। নিহত আল মনসুর মিশু(২৬) ওই গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের পুত্র। ঘটনায় ফেঞ্চুগঞ্জের সর্বত্র তোলপাড় শুরু হয়েছে। মৃতের হাতে থাকা মোবাইল ফোনটি জব্ধ করে সিআউডিতে প্রেরণ করেছে থানা পুলিশ।

স্থানীয় সংবাদ সূত্র জানায়, পরিবারের বড় ছেলে আল মনসুর মিশু গত বছর কাতার থেকে দেশে ফিরে উভয় পরিবারের সম্মতিতে আপন খালার ভাশুরের মেয়ে পান্নাকে বিয়ে করেন। পান্না ফেঞ্চুগঞ্জের নারায়ণপুর গ্রামের জয়দু মিয়ার মেয়ে। বিয়ের সময় পান্নার পরিবার বর মিশু পরিবারের কাছ থেকে মোহরানা বাবদ নগদ ১০ লাখ টাকা নেয়। এর পর গত ২ মাস আগে স্বর্ণ বাবদ আরো ৫ লাখ টাকা নিয়েছে। বিয়ের পর পান্না আমেরিকা চলে যায় এবং শিশু দেশেই অবস্থান করছিল।

নিহতের ছোট ভাই হুমায়ুন আহমেদ জানান, ঘটনার দিন তিনি তার মা’কে নিয়ে চিকিৎসার জন্য ভারতে ছিলেন। গত কিছুদিন থেকেই স্বামী মিশু ও স্ত্রী পান্নার মধ্যে মনোমালিন্য চলছিল। বিভিন্ন ব্যাপারে তাদের মধ্যে মনোমালিন্য প্রায়ই দেখা দিত। কিছুদিন আগে পান্না মিশুকে ছেড়ে দেয়ার হুমকি দিলে মিশু তখন মরে যাবে বলে জানিয়েছিল।

ওই সূত্রটি জানায়, ঘটনার দিন আল মনসুর মিশু আত্মহত্যার আগে অজু করে পান্নাকে বলে ‘আমি চলে যাচ্ছি, তুমি ভালো থেকো।’ আর আত্মহত্যার পুরো চিত্রটি পান্না সরাসরি আবলোকন করে।

পারিবারিক অপর একটি সূত্র মিশিগানের পান্নার ঘনিষ্ঠজনের বরাত দিয়ে জানান, ঘটনার পর পর পান্না তাকে জানায়, ‘আমি ভাবতে পারিনি মিশু এভাবে আমাকে ইমোতে লাইভে রেখে আত্মহত্যা করবে।’

ফেঞ্চুগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল বাশার মোহাম্মদ বদরুজ্জামান জানান, খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে শুক্রবার ভোররাতেই পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে। লাশের সুরত হালের সঙ্গে একটি মোবাইল ফোন পাওয়া গেছে। ওই ফোনটির লক খুলতে এবং তাতে সংরতি সব রেকর্ড যথাযথ পাওয়ার জন্য মোবাইল ফোন সিআইডিতে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনায় থোনায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

তিনি জানান, মোবাইল ফোনে মিশু আত্মহত্যার পেছনে যদি ওই মেয়েটি কিংবা কারো উস্কানি ও প্ররোচণার প্রমাণ পাওয়া যায়, তবে থানায় দায়ের করা অপমৃত্যু মামলাটি হত্যা কিংবা অন্যান্য ধারার মামলায় রূপান্তরিত করা হবে।

প্রসঙ্গত, গত ১৫ নভেম্বর বৃস্পতিবার দিবাগত রাত তিনটায় আল মনসুর মিশু(২৬) নামে এক যুবক আত্মহত্যা করে। সে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার উত্তর ফরিদপুর গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের পুত্র।

  •  

সর্বশেষ ২৪ খবর