৭মার্চ উপলক্ষে শাবিতে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন

প্রকাশিত: 3:08 PM, March 7, 2020

৭মার্চ উপলক্ষে শাবিতে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন

শাবি প্রতিনিধি : সকাল থেকে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি উপেক্ষা করে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতীয় ঐতিহাসিক ৭ মার্চ দিবস উদযাপন করা হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ সম্প্রচার, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, আনন্দ শোভাযাত্রা, আলোচনাসভা ও প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শণী ইত্যাদি।
শনিবার (৭ মার্চ) সকাল ৮টা থেকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কর্তৃক রেসকোর্স ময়দানে প্রদত্ত ভাষণ সম্প্রচারের মধ্য দিয়ে এ কর্মসূচি শুরু হয়।
পরে সকাল সাড়ে নয়টায় জাতীয় সংগীত পরিবেশনের সাথে জাতীয় ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলন শেষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের নেতৃত্বে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।
পুষ্পস্তবক শেষে একটি র‌্যালি করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। র‌্যালিটি ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে মিনি অডিটোরিয়ামে গিয়ে সমাবেশে মিলিত হয়।
এসময় অনানুষ্ঠানিক আলোচনাসভার জাতির জনক বন্ধবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গবেষণা সেলের পরিচালক অধ্যাপক ড. আব্দুল গণির সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য বলেন, ‘ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষনের মাধ্যমে স্বাধীনতার বিজ বপন করেছিলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তিনি বলেছিলেন এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম মুক্তির সংগ্রাম। তিনি অনুভব করেছিলেন স্বাধীনতা দরকার। যা পরবর্তীতে আমাদেরকে স্বাধীনতা অর্জনের সাহস যুগিয়েছিল। ইতিহাস সমৃদ্ধ এ ভাষণ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে সকলে প্রত্যয়ী হবার আহ্বান জানান উপাচার্য।’
অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. রাশেদ তালুকদার, সেন্টার অব এক্সিলেন্সের পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. আখতারুল ইসলাম, শিক্ষক সমিতির সদ্য সাবেক সভাপতি অধ্যাপক ড. এস এম সাইফুল ইসলাম, পরিসংখ্যান বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. কবির হোসেন, ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোহাম্মদ রুহুল আমিন ও সাধারণ সম্পাদক ইমরান খান প্রমুখ।
আলোচনা পরবর্তী একই স্থানে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক সংগঠন চোখ ফিল্ম সোসাইটির সহযোগিতায় বঙ্গবন্ধু সম্পর্কিত বিভিন্ন ডকুমেন্টারি প্রদর্শনের আয়োজন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, দপ্তরপ্রধান, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ ২৪ খবর